728 x 90
728 x 90
728 x 90
Advertisement
create a new WordPress Website

লক্ষ্মীপুরে ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিলেন ভ্রাম্যমান আদালত

লক্ষ্মীপুরে ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিলেন ভ্রাম্যমান আদালত

ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিলেন ভ্রাম্যমান আদালত

সোহেল হোসেন লক্ষীপুর জেলা প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে রামগঞ্জ উপজেলার ভোলা কোট ইউনিয়নের মেসার্স মদিনা ব্রিক ফিল্ড এর মালিক আমির হোসেন ডিপজলকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্যাট মাহবুবুর রহমান। বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমার নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্টেট এ অভিযান করেন। সূত্রে জানান আমির হোসেন ডিপজল অবৈধভাবে দুইটি ইটভাটা পরিচালনা করে আসছেন। মালিকের গাফিলতির কারণে আমির হোসেন ডিপজল এর মালিকাণাধীন মেসার্স মদিনা ব্রিক ফিল্ডের ঝুঁকিপূর্ণ দেয়াল ধ্বসে গত ২৭ মে ইটভাটার শ্রমিক বেলাল হোসেন (৩০), ফারুক হোসে (১৮) নামের দুই সহোদরসহ রাকিব হোসেন (২৫) নামের তিন শ্রমিক নিহত হয়েছে। আহত হয় প্রায় ৩০ জনের। নিহত দুই সহোদর বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার কমলনগর উপজেলার চরজগবন্ধু গ্রামের আলতাফ মাঝির ছেলে। গুরুতর আহতবস্থায় রাকিব হোসেনকে লক্ষ্মীপুর সদর হসপিটালে ভর্তি করানো পূর্বে কর্ত্যব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ইটভাটার মালিক ও ম্যানেজার স্বপন মিয়া দুর্ঘটনা সাথে সাথে পালিয়ে যায়। উপজেলা প্রশাসন,ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্বার করেন। সাংবাদিকদের সাথে ব্রিফ করে ইটভাটা বন্ধ করেন। পরের দিন রামগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন প্রকাশ গম দেলু পলাতক ইটভাটা মালিক আমির হোসেন ডিপজল, ম্যানেজার স্বপনকে তার অফিসে উপস্থিত করে নিহতের স্বজনদের সাথে সমঝোতা করতে প্রশাসনের সহায়তা চান। পুলিশ সংবাদ পেয়ে ভাটার মালিক ও ম্যানেজারকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করেন। বন্ধ করা ভাটা জামিনে মুক্ত হয়ে হেলে পড়া ইটভাটা সংস্কার না করে ইট ভাটা চালু করেন। এমন অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমার নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি অভিযান চালিয়ে ইটভাটার মালিক আমির হোসেন ডিপজলকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেন। হাবিবুর মাঝি নামের এক শ্রমিক জানান, গত বছর একবার এ ধরনের দূর্ঘটনায় কয়েকজন শ্রমিক আহত হলে আমরা মালিককে জানালে তিনি উক্ত চুল্লির দেয়াল সংস্কার করেননি। উপরুন্ত আমাদের মালিক আমির হোসেন ডিপজল জানান এখনো তো কেউ মারা যায়নি। মারা গেলে না হয় একলক্ষ টাকা করে দিয়ে দিবো। ইটভাটা ম্যানেজার স্বপন মিয়া জানান নিহতদেরকে জনপ্রতি ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দিয়েছি। আমাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা জামিনে মুক্ত হয়ে ইটভাটা চালু করেছি। দেহলা গ্রামের নোমান জানান আমির হোসেন ডিপজল তার মালিকীয় সম্পত্তি দখল করে অবৈধ ইটভাটা করেন। জমি দখলের কারণে তার বিরুদ্ধে জেলাপ্রশাসক ও পরিবেশ অধিদপ্তরে অভিযোগ করলে তিঁনি তাকে জবাই করে হত্যার হুমকি দেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা জানান অবৈধ ও অব্যবস্থাপনা কারনে ইটভাটা দেয়াল ধব:সে এতো বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে। ইটভাটা বন্ধের পরেও অব্যবস্থাপনা ইট পোড়াঁনো কারণে ভাটার মালিককে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছি। আমির হোসেন ডিপজলের উপজেলার বিঘা গ্রামের বাসিন্দা। তিঁনি গত প্রায় ১০/ ১২ বছর ভোলাকোট ইউনিয়নের দেহলা গ্রামের দুইটি ইটভাটা মালিক। তিঁনি স্থানীয় ভাড়াটে দুর্বৃত্তদের দিয়ে দেহলা- সমেষপুর,সিরোন্দী, আনুবাইশ, পশ্চিম দেহলা গ্রামের হাজার হাজার কৃষকের কৃষি জমি লুটে নেন। সরকারী খাল,নর্দমা দখল করে মাটি লুট করেন।

Posts Carousel

Latest Posts

Top Authors

Most Commented

Featured Videos

ক্যালেন্ডার

June 2021
F S S M T W T
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930