728 x 90
728 x 90
728 x 90
Advertisement
create a new WordPress Website

নন্দীগ্রামে বিদ্যালয়ের জমি বেদখল,নোটিশ করায় মামলা ।

নন্দীগ্রামে বিদ্যালয়ের জমি বেদখল,নোটিশ করায় মামলা ।

নন্দীগ্রামে বিদ্যালয়ের দুইবিঘা জমি বেদখল।

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার গছাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুই বিঘা জমি অবৈধ দখলকারীকে দু’দফায় নোটিশ করার পরও সম্পত্তি হস্তান্তর করেনি। উল্টো আদালতে মামলা দায়ের করেছেন দখলকারী ভাটগ্রাম ইউনিয়নের গছাইল গ্রামের মোজাহার আলী আকন্দ। তার পাঁচপুত্র, পুত্রবধু ও এক নাতিসহ ৮জনই মামলার বাদী। বিবাদীরা হলেন- বগুড়া জেলা প্রশাসক, শিক্ষা বিভাগ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), বগুড়া সদর সহকারী কমিশনার (ভূমি), নন্দীগ্রাম সহকারী কমিশনার (ভূমি), ভাটগ্রাম (ভূমি) উপ-সহকারী কর্মকর্তা, জামাদারপুকুর (ভূমি) উপ-সহকারী কর্মকর্তা এবং গছাইল মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতিকে বিবাদী করা হয়েছে। মিথ্যা মামলার মাধ্যমে বিদ্যালয়ের দুই বিঘা জমি জবরদখল ও আত্মসাতের উদ্দেশ্যে হয়রানী করা হচ্ছে বলে অভিযোগ এনে গতকাল শনিবার দুপুরে নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি রুমানা খাতুনের পক্ষে তার স্বামী গছাইল গ্রামের মিজানুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন ব্যবস্থাপনা কমিটির সাবেক সহ সভাপতি বদরুল মনির, সাবেক অভিভাবক সদস্য জুয়েল হোসেনসহ গণ্যমান্যরা। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, পালাহার মৌজার ৩নং খতিয়ানের ৬০৫দাগের ৩৪শতাংশ ধানী এবং গছাইল মৌজার ২নং খতিয়ানের ২১২৩দাগের ৩০শতাংশ ধানী জমি বিদ্যালয়ে সম্পত্তি। ব্যবস্থাপনা কমিটির সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের যোগসাজসে দাতা সদস্য মোজাহার আলী আকন্দ বিদ্যালয়ের ৬৪শতাংশ সম্পত্তি মৌখিকভাবে দেখভাল করছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে ওই সম্পত্তি বিদ্যালয়ে বুঝিয়ে দিতে মৌখিকভাবে বলা হলেও দখল ছাড়েননি। সম্পত্তি বিদ্যালয়ে হস্তান্তর করার জন্য মোজাহারকে চলতি ২০২২সালের ১৫মার্চ নোটিশ করে ব্যবস্থাপনা কমিটি। নোটিশের ৪৫দিন পর ১৯এপ্রিল একমাসের সময় চান দখলকারী। লিখিত আবেদনে মোজাহার বলেন, লোন সংক্রান্তে তার জমির দলিল ব্যাংকের নিকট জমা দেওয়া আছে। সে মোতাবেক একমাস সময় দেয় ব্যবস্থাপনা কমিটি। তবুও কথা রাখেননি মোজাহার। যেকারণে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের হুশিয়ারী দিয়ে ২৯মে মোজাহার আলী আকন্দকে চুড়ান্ত নোটিশ দেয় ব্যবস্থাপনা কমিটি। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মিজানুর রহমান অভিযোগ করেন, নোটিশ করায় সরকার পক্ষের বিরুদ্ধে বগুড়ার ১ম সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা (৪৭৩/২২) দায়ের করেছে অবৈধ দখলকারী। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে লিখিতভাবে অনুরোধ জানিয়েছে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি।

এই নিউজটি শেয়ার করুন। 

Posts Carousel

Latest Posts

Top Authors

Most Commented

Featured Videos

ক্যালেন্ডার

November 2022
F S S M T W T
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

এই নিউজটি শেয়ার করুন। 

বাংলা বাংলা English English